কারাগারের রোজনামচা বইটির রিভিউ সম্পর্কে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি সাজানো হয়েছে বইটি লিখেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং দুইটি দুইটি ভাষায়  অনূদিত করা হয়েছে। 

কারাগারের রোজনামচা বঙ্গবন্ধুর নিজের লিখিত একটি বই এই বইটির প্রকাশনা করেছেন বাংলা একাডেমী এবং এটি প্রথম প্রকাশ করা হয় 2017 সালের এবং কয়টি মোট 332 পৃষ্ঠা। 

কারাগারের রোজনামচা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনীতি জীবনের একটি বড় অংশ কেটে গেছে কারাগারের ভেতরে এবং কারাগারে বসে তিনি লিখে গিয়েছেন তার জীবনের সবথেকে কঠিনতম অধ্যায়টির কথা এবং সেই কথাগুলো কে একটি বই আকারে প্রকাশ করার জন্য উদ্বেগ করা হয় এবং সেই উদ্যোগ অনুসারে প্রকাশ করা হয় কারাগারের রোজনামচা এই বইটি। 




বাংলা একাডেমি এই উদ্যোগ নেওয়ার পর মহান কাজটি শুরু করে এবং তার পর প্রকাশিত হলো বহুল প্রত্যাশিত কারাগারের রোজনামচা এই বইটি এবং বইটি লিখেছেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি এবং জাতির পিতা বাঙালির গর্ব জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তিনি নিজেই। 

বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাংলাদেশের স্বপ্ন সারথি এবং তিনি শৈশব থেকেই গণমানুষের দাবি আদায়ের ব্যাপারে খুবই সেসার ছিলেন এই দাবিগুলো তারমধ্য ছিল অন্যতম ছয় দফা দাবি হাজার ১৯৬৬ সালে বঙ্গবন্ধুকে জাতির জনক বলা হয়েছিল। 

এবং এই সময়ে তিনি কারাবন্দি ছিলেন এবং কারাবন্দি অবস্থায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা কথায় তিনি একটি বই রচনা করেন এবং এই অমর কীর্তি এবং বাংলার মাটি ও মানুষের জন্য আত্মত্যাগ রয়েছে তা কারাগারের রোজনামচা বইটির খুবই সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। 

কারাগারের রোজনামচা বইটির ভেতরে বঙ্গবন্ধুর কারাজীবন এর কষ্টের কথা উল্লেখ করা হয়েছে এবং জেলখানায় তার জীবন কেমন কেটেছে জেলখানার মানুষের গল্প এবং জেলখানায় বসে থেকে দেশের জন্য তার যে চিন্তা ভাবনা এবং দৃষ্টিভঙ্গি ছিল সে কথা তৎকালীন সময়ে তার মানসিক যে অবস্থা এবং বিশেষত কারাগারের যে জগতটা কেমন ছিল তার এই বইতে স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। 


এই বইতে শুধু কারাগারের চিত্রই নয় ফুটে উঠেছে সমসাময়িক বা তৎকালীন রাজনৈতিক পরিস্থিতি ছিল তা পাকিস্তান সরকারের এক একনায়কতন্ত্র মনোভাব এবং অন্যায় অত্যাচার এবং নানা ধরনের নির্যাতনের চিত্র তিনি এই বইতে ফুটিয়ে তুলেছেন। 

এই বইতে ফুটে উঠেছে একজন বন্দি বাবার আকুতি একজন অবউৎ সন্তানের ভালোবাসা একজন দেশপ্রেমিকের দেশ ও মানুষের জন্য ভাবনা এবং রাজনৈতিক চিন্তা দৃষ্টি। 

কারাগারের রোজনামচা নামকরণ কে করেছেন

কারাগারের রোজনামচা বইটির ভূমিকা লিখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা এবং এই বইটির নামকরণ করেছিলেন তার কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা। কারাগারের রোজনামচা বইটির প্রথম প্রকাশ করা হয় 2017 সালের 17 ই মার্চ এবং এই বইটি প্রকাশ করে বাংলা একাডেমি প্রকাশক এই বইটির প্রচ্ছদ তৈরি করেছেন শিল্পী এবং ব্যবহার করা হয়েছে বইটির গ্রন্থস্বত্ব হলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট। 

কারাগারের রোজনামচা Pdf Download link

কারাগারের রোজনামচা বইটির আপনি বাংলা একাডেমির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে খুব সহজেই চিনে নিতে পারবেন এবং যদি আপনি এই বইটির পিডিএফ লিংক চান তাহলে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে খুব সহজেই গুগল ড্রাইভ থেকে কারাগারের রোজনামচা বইটির আপনি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন এবং খুব সহজেই আপনি বইটি পড়ে নিতে পারবেন। 


আশাকরি কারাগারের রোজনামচা বইটির রিভিউ সম্পর্কে আপনারা খুব ভালোভাবে জানতে পেরেছেন বঙ্গবন্ধু সংক্রান্ত এরকম আরও তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমাদের গুগোল নিউজ ফলো করে রাখুন। 

1 thoughts on "কারাগারের রোজনামচা বই রিভিউ (Karagarer Rojnamcha book review)"

Thanks